এটা কী ধরনের সরকার, প্রশ্ন মঈন খানের

0
Array

সরকার ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান। রোববার দুপুরে রাজধানীর উত্তরায় সদ্য কারামুক্ত ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ মোস্তফার বাসায় তার খোঁজ-খবর নিতে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে এ মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপির নেতাকর্মীদের জেলের ভেতরের নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, সরকারকে আজকে ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করতে চায়। এখানে যেন সরকারের বিরুদ্ধে মুখ না খুলে। এটা কী ধরনের সরকার? বাংলাদেশ কী কারণে সৃষ্টি হয়েছিল? কোথায় গণতন্ত্র, সুশাসন, মানবাধিকার, ভোটের অধিকার, সুস্বাস্থ্য ও শিক্ষার অধিকার? কী কারণে বাংলাদেশ আজকে এখানে পতিত হয়েছে। সেই উত্তর আজকে সরকারকে দিতে হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে মঈন খান বলেন, সরকারের কথা সম্পূর্ণ ঠিক না হলেও অনেকটা ঠিক। সবকিছু হারিয়ে আমরা কিন্তু একটি জিনিস পেয়েছি, সেটা হলো আমরা দেশের ১৮ কোটি মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। এটাই আমাদেশের কাম্য। আর আমাদের রাজনীতির উদ্দেশ্যেও তাই। তাদেরকে (জনগণ) ভয়-ভীতি দেখিয়ে, জুলুম- অত্যাচার এবং লগি-বৈঠার রাজনীতি বিএনপি করে না। আমরা মানুষকে সেবা করার জন্য রাজনীতি করি।

একদিন না একদিন এই সরকারকে বিদায় নিতেই হবে বলেও ক্ষমতাসীনদের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

আরেক প্রশ্নের জবাবে মঈন খান বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের যে অবস্থা হয়েছে, সেটা জেলের ভেতরে তার ওপরে যে মানসিক নির্যাতন হয়েছে তারই পরিণতি এটা। এটা কোনো সভ্য দেশে হতে পারে না।

মঈন বলেন, কেনো আজকে দেশের মানুষকে বাকরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে? কেনো সরকারের সমালোচনা করলে জেলে যেতে হয়? সরকারের সমালোচনা বিরোধী দলের কর্তব্য ও দায়িত্ব। এই অধিকার তো আমাদের সংবিধান আমাদেরকে দিয়েছে। সুতরাং দেশের যে পরিণত হয়েছে, এর চেয়ে দু:খজনক ও লজ্জাজনক আর কিছু হতে পারে না।

About Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • Click to Chat
  • Click to Chat
  • Click to Chat
  • Click to Chat