‘ডামি’ নির্বাচন করে দেশকে সঙ্কটে ফেলেছে সরকার : চরমোনাই পীর

0
Array

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর ও চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম বলেছেন, সরকার ‘ডামি’ নির্বাচন করে দেশকে ভয়াবহ সঙ্কটে ফেলে দিয়েছে। ফলে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে ভয়াবহ সঙ্কটের কবলে পড়তে যাচ্ছে দেশ। বেসরকারি কয়েকটি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন বলে সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে জানানো হয়।

রেজাউল করীম বলেন, ২০১৪ সালে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় ১৫৪ জনকে এমপি ঘোষণা করে সংবিধান অমান্য করেছে। ২০১৮ সালে দিনের ভোট রাতে করে জনগণের সঙ্গে গাদ্দারী করেছে। এবার সরকার ‘ডামি’ নির্বাচন করে দেশকে ভয়াবহ সঙ্কটে ফেলে দিয়েছে। ফলে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে ভয়াবহ সঙ্কটের কবলে পরতে যাচ্ছে দেশ। দেশের রিজার্ভ শূন্যের কোঠায়।
তিনি বলেন, ৭ই জানুয়ারি একতরফা প্রহসনের ডামি নির্বাচনে দেশবাসী ভোট বর্জন করে সরকারকে একটি সংকেত দিয়েছে। আমরা দেশবাসীকে ভোট বর্জনের আহ্বান জানিয়েছি। জনগণ সে আহ্বানে সাড়া দিয়ে সরকারকে চপেটাঘাত করেছে। সরকার প্রশাসনের ওপর ভর করে ক্ষমতায় টিকে আছে, এটা সবাই বুঝে।আর প্রশাসনও প্রজাতন্ত্রের কর্মচারি এটা বেমালুম ভুলে একটি দলের হয়ে কাজ করছে। ফলে জনগণের প্রতিবাদের অধিকারটুকুও পাচ্ছে না।

চরমোনাই পীর বলেন, নতুন শিক্ষা কারিকুলাম শিক্ষার্থীদের ভিন্ন সংস্কৃতিতে ধাবিত করছে এতে কোন সন্দেহ নেই। এজন্য দেশের অধিকাংশ অভিভাবক তাদের আদরের সন্তানদের নিয়ে খুবই চিন্তিত। এছাড়া পড়া বিমুখ হয়ে নাস্তিক্যতাবাদের দিকে ধাবিত হওয়া নিয়েও শঙ্কিত। দেশের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে নতুন শিক্ষা কারিকুলাম সম্পূর্ণ অনুপযুক্ত। ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে রক্ষা করতে হলে এটি বাতিলের কোনো বিকল্প নেই। কারণ উন্মুক্ত মতামত গ্রহণ করলে দেশের অধিকাংশ জনগোষ্ঠী এই শিক্ষানীতি ও সিলেবাস প্রত্যাখান করবে। তাই নতুন শিক্ষা কারিকুলাম বাতিল করে দেশের অধিকাংশ মানুষের চিন্তা চেতনা অনুযায়ী প্রণয়ন করতে হবে।

About Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • Click to Chat
  • Click to Chat
  • Click to Chat
  • Click to Chat