ভারপ্রাপ্ত সভাপতিকে বরণ করেছে ছাত্রদল

0
Array

এক দফা দাবিতে বিএনপির অবস্থান কর্মসূচিতে ব্যর্থতার দায়ে সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণের স্থলে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া রাশেদ ইকবাল খানকে বরণ করে নিয়েছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। বুধবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মিছিল সহকারে তাকে স্বাগত জানায়। এ সময় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদ ইকবাল খান বলেন, ‘আমাদের অভিভাবক তারেক রহমান একটি সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। মনে প্রাণে বিশ্বাস করি, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ছাত্রদের একটি মূল গণসংগঠন। এই সংগঠনে আমার মতো রাশেদ ইকবালসহ অসংখ্য নেতা রয়েছেন। যে কেউ এই সংগঠনের নেতৃত্ব দিতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞা এবং যোগ্য।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের অভিভাবক তারেক রহমানের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে আজকে যারা এখানে উপস্থিত হয়েছেন সকলকে অভিনন্দন জানাই। সর্বোচ্চ শৃঙ্খলা ও ঐক্যের সঙ্গে এই ফ্যাসিবাদী সরকারের পতন ঘটাতে ছাত্রদলের সকলকে রাজপথে থাকার আহŸান জানাই।’

এই সময়ে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবসহ ছাত্র সংসদের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। পরে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা একটি মিছিলও বের করে। পরে নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতিকে নিয়ে তিন তলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে দেখা করেন ছাত্রদলের নেতারা। এরপর তারা একই ভবনে ছাত্রদলের কার্যালয়ে যান।

এদিকে, আজ সকালে মহানগর ছাত্রদল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, বদরুনেসা কলেজ, তিতুমীর কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বাংলা কলেজসহ রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নেতাকর্মীরা নয়া পল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমবেত হয়ে নতুন নেতাকে স্বাগত জানায়।

নেতাকর্মীরা তারেক রহমানের সিদ্ধান্তকে জানিয়ে স্বাগত জানিয়ে ‘তারেক রহমানের সিদ্ধান্ত, চূড়ান্ত চূড়ান্ত’, তারেক রহমান এগিয়ে চলো, আমরা আছি তোমার সাথে’ ইত্যাদি শ্লোগান দেয়।

গতকাল মঙ্গলবার বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ছাত্রদলের বর্তমান সভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণের অসুস্থতার কারণে দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি রাশেদ ইকবাল খানকে ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে। রাশেদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের ২০০৬-০৭ সেশনের ছাত্র ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদী।

About Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • Click to Chat
  • Click to Chat
  • Click to Chat
  • Click to Chat